1. admin@prothombela.com : দৈনিক প্রথমবেলা : দৈনিক প্রথমবেলা
  2. alhajshahalam99@gmail.com : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক
শিরোনাম :
নওগাঁ টিটিসিতে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা দেশকে এগিয়ে নিতে সাহায্য করে- খাদ্যমন্ত্রী ভালুকায় শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত- মহান মুক্তিযুদ্ধের বিজয়কে ত্বরান্বিত করেছেন শিল্পী সমাজ – খাদ্যমন্ত্রী ঝিনাইগাতী ইউএনওর মোবাইল নম্বর ক্লোন করে চাঁদা দাবি সাভার পৌর ৮নং ওয়ার্ড কৃষক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত ধান ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার সৈয়দপুরে শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকান্ড জনসম্মুখে তুলে ধরা ও যুদ্ধাপরাধীদের নতুন চক্রান্তের প্রতিবাদে স্থানীয় আ’লীগের জনসভা নওগাঁ রাণীনগরে তাল বীজ রোপণের উদ্বোধন দরিদ্র মানুষের সামাজিক নিরাপত্তা বেড়েছে: খাদ্যমন্ত্রী ভালুকায় জনগণ ও শ্রমিকের কষ্ট লাগবে রাস্তা সংস্কারের উদ্বোধন

স্ত্রীর লাশ হাসপাতালে রেখে পালালেন স্বামী

  • আপডেট টাইম: শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০
  • ৮৮ বার দেখা হয়েছে

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মুয়মুন মুনা (২৫) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ ফেলে পালিয়েছেন তার স্বামী ফুয়াদ হাসান। শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে

নিহত মুয়মুন মুনা ময়মনসিংহ মহানগরীর জামতলা মোড় এলাকার মৃত আব্দুল জলিলের মেয়ে।

ময়মনসিংহের কোতোয়ালী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ তালুকদার জানান, ২০১৪ সালে জামতলা মোড়ের নাসিম হোসেনের ছেলে ফুয়াদ হোসেনের সঙ্গে একই এলাকার মৃত আব্দুল জলিলের মেয়ে মুয়মুন মুনার বিয়ে হয়। তাদের চার বছর বয়সী একটি মেয়ে রয়েছে।

বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বনিবনা হচ্ছিল না। ধারণা করা হচ্ছে- এরই জেরে ফুয়াদ তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মরদেহ ঝুলিয়ে রাখতে পারেন। মুনাকে হাসপাতালে রেখে ফুয়াদসহ তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন পালিয়েছে। ফুয়াদসহ পলাতকদের আটকের চেষ্টা চলছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে নিহতের মামা ফারুক হোসেন বলেন, শুক্রবার রাত ৯টার দিকে ফুয়াদ তাদেরকে মোবাইল ফোনে কল করে জানায় মুনা অসুস্থ, তাকে হাসপাতালে নিতে হবে। পরে মুনাকে হাসপাতালে রেখে ফুয়াদ সটকে পড়ে।

তিনি আরও বলেন, শ্বশুরবাড়ির লোকজন প্রায় সময়েই যৌতুকের জন্য মুনাকে মারপিঠ করতো। সংসার টিকানোর জন্য জায়গা বিক্রি করেও ফুয়াদকে টাকা দেয়া হয়েছে। কিন্তু ফুয়াদ মুনাকে মেরে গলায় রশি লাগিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখবে তা ভাবনার বাইরে ছিল।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
প্রকাশক কর্তৃক স্যানমিক প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত। সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ প্রথমবেলা
Site Customized By Rahatit.Com