1. admin@prothombela.com : দৈনিক প্রথমবেলা : দৈনিক প্রথমবেলা
  2. alhajshahalam99@gmail.com : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক
  3. 65@sondat.com.vn : claudejnj9 :
শিরোনাম :
ধান ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার সৈয়দপুরে শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকান্ড জনসম্মুখে তুলে ধরা ও যুদ্ধাপরাধীদের নতুন চক্রান্তের প্রতিবাদে স্থানীয় আ’লীগের জনসভা নওগাঁ রাণীনগরে তাল বীজ রোপণের উদ্বোধন দরিদ্র মানুষের সামাজিক নিরাপত্তা বেড়েছে: খাদ্যমন্ত্রী ভালুকায় জনগণ ও শ্রমিকের কষ্ট লাগবে রাস্তা সংস্কারের উদ্বোধন সাতক্ষীরায় পানিবন্দী মানুষের মানববন্ধন নারায়ণ হত্যাকাণ্ডের খুনী রাজু  আটক জামুকা’র সুপারিশ বিহীন বেসামরিক গেজেট ধারী ২৩ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের যাচাই-বাছাই সম্পন্ন ভাঙ্গা সাঁকোয় লাখ মানুষের চলাচলে চরম দুর্ভোগ নালিতাবড়ীতে বাল্যবিবাহে- বরের তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড

আল্লাহ ও দর্শকের কাছে ক্ষমা চাইলেন মুশফিক

  • আপডেট টাইম: মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৫৩ বার দেখা হয়েছে

হারলেই বাদ, এমন সমীকরণ সামনে নিয়েই গতকাল সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) এলিমেনেটর রাউন্ডে ফরচুন বরিশালের মুখোমুখি হয়েছিল বেক্সিমকো ঢাকা। এমন ম্যাচে স্বাভাবিকভাবেই চাপে থাকার কথা ক্রিকেটারদের। সেই চাপ যেন বুমেরাং হয়ে উঠলো ঢাকার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের জন্য। পুরো ম্যাচেই সতীর্থদের সঙ্গে উত্তেজিত আচরণ করতে দেখা গেছে তাকে। এমনকি মেজাজ হারিয়ে স্পিনার নাসুম আহমেদকে মারতে দুইবার হাতও উঠে গিয়েছিল তার।

এই ঘটনার পর বেশ সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়েছে জাতীয় দলের এই উইকেটকিপারকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এ নিয়ে ক্ষমাও চেয়েছেন তিনি। আজ মঙ্গলবার সকালে এক স্ট্যাটাসে মুশফিক বলেন, আসসালামুওয়ালাইকুম। প্রথমেই আমি গতকালের খেলার সময় ঘটে যাওয়া ঘটনার জন্যে আমার ভক্ত ও দর্শকদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। খেলার পরেই আমি আমার সতীর্থ নাসুমের কাছে সেই ঘটনার জন্য ক্ষমা চেয়েছি। দ্বিতীয়ত আমি পরম করুণাময় আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমি সবসময় মনে রাখি সবকিছুর ঊর্ধে আমি একজন মানুষ এবং মাঠে যেই আচরণ করেছি তা গ্রহণযোগ্য নয়। ইন শা আল্লাহ ভবিষ্যতে মাঠে এবং মাঠের বাইরে এরকম ঘটনা ঘটবে না… জাযাকাল্লাহ খায়ের

গতকাল ম্যাচে দুইবার সতীর্থ নাসুম আহমেদের ওপর মেজাজ হারিয়েছেন তিনি। নাসুমকে দুইবার বল ছুড়তে গেছেন ‘অ্যাংরি ম্যান মুশফিক’। সতীর্থকে রীতিমতো মারতেই তেড়ে গেছেন তিনি। অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারের এমন আচরণ অবাক করেছে সবাইকে।

প্রথমবার ইনিংসের ১৩তম ওভারে নাসুমের করা তৃতীয় বলটা মিড অনে ঠেলে দেন আফিফ। ফিল্ডিং করতে দৌড়ে আসেন বোলার নাসুম, অন্যদিকে মুশফিকও এগিয়ে আসেন। বল কুড়িয়ে নিয়েই বাঁহাতি এই স্পিনারকে বল ছুড়তে তেড়ে যান মুশফিক।

দ্বিতীয়বার শফিকুলের করা ইনিংসের ১৭তম ওভারে আফিফ ক্যাচ দেন শর্ট ফাইন লেগে। ফিল্ডার নাসুম এগিয়ে আসেন ক্যাচ ধরতে। তার আগেই দৌড়ে এসে মুশফিক ক্যাচ নেন। তারপর ঘুরেই নাসুমকে আবারও সজোরে বল ছুড়তে যান ঢাকার অধিনায়ক। তত্ক্ষণাত্ মুশফিকের আচরণে ভড়কে যান নাসুম, বিব্রত হয়ে পড়েন। ম্যাচ জয়ের পর টি-স্পোর্টসকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে নাসুমের সঙ্গে করা বিকারগ্রস্ত আচরণ নিয়ে জানতে চাইলে মুশফিক বলেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। সব কিছু ঠিক আছে। জয়ের মধ্যে থাকলেও ব্যক্তি ও দল হিসেবে আমাদের উন্নতির জায়গা আছে আরো। সুতরাং আগামীকাল (আজ) আরেকটা ম্যাচ আছে, আশা করি জিতব, দেখা যাক আশা করি দল হিসেবে খেলতে পারব।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
প্রকাশক কর্তৃক স্যানমিক প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত। সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ প্রথমবেলা
Site Customized By Rahatit.Com