1. admin@prothombela.com : দৈনিক প্রথমবেলা : দৈনিক প্রথমবেলা
  2. adrianne-vaux@shownewshd.ru : adriannevaux845 :
  3. vanya.sergeesergeev@yandex.ru : Antonylitle :
  4. 65@sondat.com.vn : claudejnj9 :
  5. pravoslvera@rambler.ru : Peterrob :
  6. alhajshahalam99@gmail.com : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক
  7. selainequinnanai@gmail.com : SamuelVaf :
  8. viola-chance@shownewshd.ru : violachance8337 :
শিরোনাম :
এমপি শেখ সোহেল ও তার সহধর্মিণীর রোগমুক্তি কামনায় পাইকগাছায় বিভিন্ন মসজিদে এমপি বাবু’র পক্ষ থেকে দোয়া প্রার্থনা সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্জে নৌকাসহ ২৫০ কেজি কাঁকড়া জব্দ সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির উদ্যোগে করোনা হেল্প সেন্টারের উদ্বোধন খুলনার ঐতিহ্যবাহী বিএল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সাবেক শিক্ষকের মৃত্যু নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের উদ্যোগে সহাকারী কমিশনারকে (ভূমি) বিদায় সংবর্ধনা আমবাড়ী হাটে  গরু বহনকারী পিকআপ ভ্যানের সাথে শ্যামলী  কোচের ধাক্কা, গরু ও মানুষ আহত  “বাহাদুর” খুলনাঞ্চলের বৃহত্বম গরু; দাম হেকেছেন ২০ লাখ টাকা দিঘলিয়ায় পুলিশের অভিযানেও মাদক সম্রাটরা থাকছে ধরাছোঁয়ার বাইরে  বছরের শুরুতে কাঁচাপাটের বাজার নিয়ে ষড়যন্ত্র ,পাটের বাজারে হঠাৎ ধস ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের পক্ষে হত দরিদ্রের মাঝে খাদ্য বিতরণ করেন  হাবিব হাসান (এমপি)

এই প্রথম সৌদিতে বাংলাদেশি গৃহকর্মীর হত্যার বিচার শুরু

  • আপডেট টাইম: বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১০৫ বার দেখা হয়েছে

সৌদি আরবে তদন্ত শেষে এখন বিচারের অপেক্ষায় গৃহকর্মী আবিরন হত্যা মামলা। এরই মধ্যে গ্রেপ্তার আসামিদের জামিন নামঞ্জুর করেছেন দেশটির আদালত। একইসাথে দুঃখ প্রকাশ করেছেন মর্মান্তিক এ ঘটনার জন্য। জাতীয় মানবাধিকার কমিশন বলছে, বিচারের কাঠগড়ায় আনতে হবে এ দেশের অভিযুক্তদেরও।

পরিবারের দু’মুঠো ভাত যোগাতে বিদেশে পাড়ি জমানো নারী শ্রমিকের মৃত্যুর কিংবা অত্যাচারের খবর নতুন নয়। পরিসংখ্যান বলছে, মধ্যপ্রাচ্যে গত পাঁচ বছরের অন্তত ৫০০ নারী শ্রমিকের অপমৃত্যু হয়। কিন্তু প্রথমবারের মতো সৌদি আরব এক বাংলাদেশী গৃহকর্মী হত্যা মামলা তদন্ত শেষে আদালতে। আর অভিযুক্ত সৌদি নাগরিকও জেল হাজতে।

২০১৯ সালে ২৪ মার্চ মৃত্যু হয় বাংলাদেশ গৃহকর্মী আবিরনের। শুরু হয় পুলিশের তদন্ত। অবশেষে অভিযুক্ত গৃহকর্তা সালেম হুদাইর ও তার স্ত্রী ও সন্তানের ঠাঁই হয় জেলহাজতে। জামিনের আবেদনও নামুঞ্জুর করে আদালত।

আবিরনের পরিবারের অভিযোগ, লাশ দেশে ফিরিয়ে আনা থেকে শুরু করে মামলা প্রভাবিত করতে দালালচক্র আর রিক্রটিং এজেন্সি লাশের ভূয়া নো অবজেকশন সার্টিফিকেটে মৃত্যু ও লাশ পৌছাবার তারিখ একদিনে দেখায়। অথচ আবিরন মারা যায় ২০১৯ সালে ২৪ মার্চ।

ঘটনার তদন্ত করে জাতিয় মানবাধিকার কমিশন। সংস্থাটির মতে, সৌদিতে আবিরন হত্যার সাথে জড়িতরা আদালতে কাঠগড়ায় দাড়ালেও ধরা ছোয়ার বাহিরে এদেশে অভিযুক্তরা।

বিশেষজ্ঞরা আইনী প্রক্রিয়াকে ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন। আদালতে দোষী প্রমানিত হলে শরীয়া আইন অনুযায়ী মৃত্যুদন্ড হতে পারে অভিযুক্তদের।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
প্রকাশক কর্তৃক স্যানমিক প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত। সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ প্রথমবেলা
Site Customized By Rahatit.Com