1. admin@prothombela.com : দৈনিক প্রথমবেলা : দৈনিক প্রথমবেলা
  2. alhajshahalam99@gmail.com : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক
শিরোনাম :
নওগাঁ টিটিসিতে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা দেশকে এগিয়ে নিতে সাহায্য করে- খাদ্যমন্ত্রী ভালুকায় শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত- মহান মুক্তিযুদ্ধের বিজয়কে ত্বরান্বিত করেছেন শিল্পী সমাজ – খাদ্যমন্ত্রী ঝিনাইগাতী ইউএনওর মোবাইল নম্বর ক্লোন করে চাঁদা দাবি সাভার পৌর ৮নং ওয়ার্ড কৃষক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত ধান ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার সৈয়দপুরে শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকান্ড জনসম্মুখে তুলে ধরা ও যুদ্ধাপরাধীদের নতুন চক্রান্তের প্রতিবাদে স্থানীয় আ’লীগের জনসভা নওগাঁ রাণীনগরে তাল বীজ রোপণের উদ্বোধন দরিদ্র মানুষের সামাজিক নিরাপত্তা বেড়েছে: খাদ্যমন্ত্রী ভালুকায় জনগণ ও শ্রমিকের কষ্ট লাগবে রাস্তা সংস্কারের উদ্বোধন

সৈয়দপুরে নিজ স্ত্রী ভেবে পর স্ত্রীকে মারধর,গ্রাম আদালতে অভিযোগ দায়ের

  • আপডেট টাইম: সোমবার, ১৪ জুন, ২০২১
  • ৮৩ বার দেখা হয়েছে

রংপুর বিভাগীয় ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে দিনে-দুপুরে নিজের স্ত্রী ভেবে অন্যের স্ত্রীকে মারধর করার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি উপজেলার খাতামধুপুর ইউনিয়নের হামুরহাট এলাকার। মতিভ্রম স্বামী নির্যাতিতার কাছে তাৎক্ষণিক ক্ষমা চাইলেও নাকের ফুল ও নগদ টাকা হারিয়ে যাওয়ায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ইউনিয়ন পরিষদে। মঙ্গলবার (১৫ জুন) গ্রাম আদালতে শালিস বসার কথা রয়েছে। তবে ঘটনাটি ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।
জানা গেছে, গত শনিবার ওই ইউনিয়নের পানিশাল এলাকার নুর মোহাম্মাদের পুত্রবধূ ফারজানা (১৯) স্বামী শাহীনের সাথে ঝগড়া করে দুপুর দেড়টায় ভ্যানযোগে একই ইউনিয়নের ডাঙ্গি এলাকায় বাপের বাড়ি যাচ্ছিল। কিছুক্ষণ পর শাহিন (২২) ও তার চাচাতো ভাই মেরাজুল ওরফে বাবু মোটর সাইকেলযোগে হামুরহাট এলাকায় ভ্যানটির গতিরোধ করে। মোটর সাইকেল থেকে নেমেই ভ্যানের সামনে বসা ওই এলাকার পাইকারপাড়ার তছিম উদ্দিন ওরফে ভীমের মেয়ে দুই সন্তানের জননী তাসলিমা বেগম তছো (৩৮) কে নিজের স্ত্রী ভেবে এলোপাথারী চড়-থাপ্পর ও ঘুষি মারতে থাকে। নির্যাতিতা তছো মুখের পর্দা সরালে শাহীন তখন দেখতে পায় ওটা তার স্ত্রী নয়। পরে নিশ্চিত হওয়ার পর তার সাত মাসের গর্ভবতী স্ত্রী ফারজানাকেও মারধর করে। ভ্যানচালক সাঈদুল প্রতিবাদ করলে তাকেও মারতে উদ্যত হয় তারা। পরে ওই ঘটনায় ক্ষমা প্রার্থনা করে শাহীন ও বাবু। কিন্তু নাকের ফুল ও বাপের বাড়ি থেকে নিয়ে আসা ছয় হাজার টাকা হারিয়ে যাওয়ায় ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালতে অভিযোগ দায়ের করেন তাসলিমা বেগম তছো ও তার স্বামী মোহাম্মদ আলী।
নির্যাতিতা তাসলিমা বেগম তছো বলেন, আমি স্বামীর বাড়ি যাচ্ছিলাম। শাহীনের অতর্কিত ও উপর্যুপরি চড়-থাপ্পর এবং কিল-ঘুষিতে আমি হতবাক। বর্তমানে অসুস্থতা বোধ করছি। বাপের বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছি।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শাহীনের বাড়িতে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি।
অন্যদিকে, ঘটনার পর শাহীনের গর্ভবতী স্ত্রী ফারজানা বাপের বাড়িতে চলে যায়। এলাকাবাসী জানায়, শাহীনের সাথে ফারজানার বিয়ে হয় ১০ মাস আগে। এরই মধ্যে কয়েকবার দাম্পত্য কলহের জেরে মারধর ও স্বামীর বাড়ি ছেড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।
খাতামধুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জুয়েল চৌধুরীর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমার লোক পাঠিয়ে ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা করছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
প্রকাশক কর্তৃক স্যানমিক প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত। সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ প্রথমবেলা
Site Customized By Rahatit.Com