1. admin@prothombela.com : দৈনিক প্রথমবেলা : দৈনিক প্রথমবেলা
  2. alhajshahalam99@gmail.com : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক
শিরোনাম :
নওগাঁ টিটিসিতে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা দেশকে এগিয়ে নিতে সাহায্য করে- খাদ্যমন্ত্রী ভালুকায় শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত- মহান মুক্তিযুদ্ধের বিজয়কে ত্বরান্বিত করেছেন শিল্পী সমাজ – খাদ্যমন্ত্রী ঝিনাইগাতী ইউএনওর মোবাইল নম্বর ক্লোন করে চাঁদা দাবি সাভার পৌর ৮নং ওয়ার্ড কৃষক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত ধান ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার সৈয়দপুরে শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকান্ড জনসম্মুখে তুলে ধরা ও যুদ্ধাপরাধীদের নতুন চক্রান্তের প্রতিবাদে স্থানীয় আ’লীগের জনসভা নওগাঁ রাণীনগরে তাল বীজ রোপণের উদ্বোধন দরিদ্র মানুষের সামাজিক নিরাপত্তা বেড়েছে: খাদ্যমন্ত্রী ভালুকায় জনগণ ও শ্রমিকের কষ্ট লাগবে রাস্তা সংস্কারের উদ্বোধন

চাঁদপুর জেলার শিশু বিনোদন কেন্দ্র পার্কগুলোতে দর্শক শূন্য

  • আপডেট টাইম: মঙ্গলবার, ১৫ জুন, ২০২১
  • ২০৪ বার দেখা হয়েছে

চাঁদপুর জেলার শিশু বিনোদন কেন্দ্র পার্কগুলোতে দর্শক শূর্ন। যে আশায় কতৃপক্ষ ব্যবসায়ীক চিন্তা ভাবনায় পার্ক গুলো তৈরি করেছে গত দু বছরের করোনা মহামারিতে তাদের ব্যবসায়ীক লোকসান গুনতে হচ্ছে।
চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলার সাচার ইউনিয়নে ব্যাক্তি মালিকানায় কয়েক বছর আগে বিশাল আকারে গড়ে তুলা হয়েছে এশা প্রিতুল শিশু পার্ক। এপার্কে রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল ও। ভেতরের মনোরম পরিবেশে তাজমহল, দাবা, রেসিং কার, সিমেন্টের তৈরি বিভিন্ন প্রাণীর অবয়ব। লেকের মধ্যে ও পাকা দৃশ্য। ২০২০ সালে করোনা মহামারি বাংলাদেশে শুরু হলে সরকার লকডাউন দিয়ে জন সমাগম বন্ধ করে। সেই থেকে এশা প্রীতুল পার্কে জন সমাগম কম ঘটতে থাকে। ঈদ বা বিশেষ দিন গুলোতে খুলা হলে ও পরে তা আবার বন্ধ করা হয়। কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, দেশে বিরাজমান করোনা মহামারি ও ইদানিং বৈড়ি আবহাওয়ার কারণে লোকজন তেমন একটা হচ্ছেনা।
এদিকে চাঁদপুর সদর উপজেলারআশিকাঠি ইউনিয়নের শাহতলি ফিডার সড়কের পাশে গড়ে উঠা ফাইভ স্টার শিশু পার্কে ও গত দু বছর ধরে তেমন কোনো দর্শনার্থির সমাগম হচ্ছে না। বিগত বছর গুলোতে শীতের মৌসুমে চাঁদপুর ও আশপাশের জেলা গুলো থেকে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষা সফরের আয়োজন করতো এ পার্কে। এতে ফাইভ স্টার পার্ক কতৃপক্ষ কিছু আয়ের উৎস দেখতে পেত। করোনার কারণে সেই আয় থেকে ও তারা বঞ্চিত। তারা জানান, এখন পার্কে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত ৪০/৫০ জন দর্শনার্থি এসে থাকে। তাতে করে লোকসানের পাল্লা গুনতে হচ্ছে।শাহমাহমুদ পুর ইউনিয়ের পল্লী বিদ্যুত এলাকার কৃতী কুঞ্জ পার্কে ও একই পরিস্হিতি বিরাজ করছে। আগে এ পার্কের গেইটের সামনে যে হারে সিএনজি, অটো বাইক ও মোটর সাইকেল থামানো থাকতো সেই দৃশ্য করোনার কারণে এখন চোখে পরে না। এদিকে হাজীগঞ্জ উপজেলার বাকিলা ইউনিয়নের গাগড়া গ্রামে কয়েকজন ব্যক্তির উদ্যোগে তৈরি করা হয়েছে ত্রি মোহনা থিমপার্ক। এটি গত ঈদুল ফিতরের দিন থেকে অনানুষ্ঠনিকভাবে চালু করা হয়েছে। গত ২ এপ্রিল এই পার্কের উদ্বোধন করার কথা থাকলেও করোনা মহামারি লকডাউনের কারণে তা উদ্বোধন করা হয়নিন। দর্শনার্থীদের চাপের কারণে পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন থেকে মাত্র ৩টি রাইডার সচল রেখে পার্কটির কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সরজমিনে গেলে কর্তৃপক্ষ জানান ত্রি মোহনা থিমপার্কের কার্যক্রম শুরু হয়নি। গত ২ এপ্রিল এটির উদ্বোধন করার কথা থাকলেও করোনার কারণে আমরা তা করিনি। সহসাই এই পার্কের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনা করা হবে। পার্কের কার্যক্রম শুরু করা হলেও সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ৬০ থেকে ৭০ জন করে গড়ে দর্শনার্থী আসে। আমরা চাই চাঁদপুর জেলার মধ্যে এই পার্কটি দর্শনার্থীদের দৃষ্টি কাড়বে।

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
প্রকাশক কর্তৃক স্যানমিক প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত। সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ প্রথমবেলা
Site Customized By Rahatit.Com