1. admin@prothombela.com : দৈনিক প্রথমবেলা : দৈনিক প্রথমবেলা
  2. alhajshahalam99@gmail.com : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক
শিরোনাম :
নওগাঁ টিটিসিতে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা দেশকে এগিয়ে নিতে সাহায্য করে- খাদ্যমন্ত্রী ভালুকায় শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত- মহান মুক্তিযুদ্ধের বিজয়কে ত্বরান্বিত করেছেন শিল্পী সমাজ – খাদ্যমন্ত্রী ঝিনাইগাতী ইউএনওর মোবাইল নম্বর ক্লোন করে চাঁদা দাবি সাভার পৌর ৮নং ওয়ার্ড কৃষক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত ধান ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার সৈয়দপুরে শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকান্ড জনসম্মুখে তুলে ধরা ও যুদ্ধাপরাধীদের নতুন চক্রান্তের প্রতিবাদে স্থানীয় আ’লীগের জনসভা নওগাঁ রাণীনগরে তাল বীজ রোপণের উদ্বোধন দরিদ্র মানুষের সামাজিক নিরাপত্তা বেড়েছে: খাদ্যমন্ত্রী ভালুকায় জনগণ ও শ্রমিকের কষ্ট লাগবে রাস্তা সংস্কারের উদ্বোধন

নালিতাবাড়ী সীমান্তে ফের বন্যহাতির আক্রমণ

  • আপডেট টাইম: মঙ্গলবার, ২২ জুন, ২০২১
  • ২৯ বার দেখা হয়েছে
মোঃ নমশের আলম, শেরপুর প্রতিনিধিঃ শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার রামচন্দ্রকুড়া ইউনিয়নের পানিহাটা চার্চ অব বাংলাদেশ সাধু আন্দ্রিয়ের মিশন ও শান্তিধামে  বন্য হাতি আক্রমণ করেছে। মিশনের সীমানার খুঁটি উপড়িয়ে কাঁটাতার ধূমড়ে মুচরে প্রায় লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানান মিশন কতৃপক্ষ।
মিশন কতৃপক্ষ ও এলাকাবাসী জানায়, মিশনের উত্তর ও পূর্ব দিক দিয়ে সীমানার খুঁটি উপড়িয়ে কাঁটাতার ধূমড়ে মুচরে পা দিয়ে পিষিয়ে, পিছনের গেইট ভেঙে বাচ্চাসহ ১৭টি হাতির একটি দল মিশনের ভিতর প্রবেশ করে। এতে মিশন সীমানার  কাঁটাতার বিনষ্ট সহ মিশনের প্রায় লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানান মিশন কতৃপক্ষ।
হাতির দল মিশনে প্রবেশ করে গাছপালা ভেঙে ফেলে। কাঁঠাল গাছের কাঁঠাল খেয়ে সাবাড় করে দেয়। মিশনের ভিতর কয়েক ঘন্টা অবস্থান করে হাতির দল। মিশনের পুরোহিত ফাদার ডেভিড মৃধার বলেন, রাত তিনটায় হঠাৎ আমাকে ফোনে জানানো হলো যে, আমার ঘরের পাশে হাতি। আমি তাড়াহুরো করে ওঠে জানালা দিয়ে দেখি আমার ঘরের চারদিক ঘিরে রেখেছে হাতির দল। বাকীরা দাঁড়িয়ে কাঁঠাল খাচ্ছে। এই দৃশ্য দেখে ভয়ে আমার শরীর কাঁপতে থাকে। আমার বসবাসের ঘর ও কেয়ার টেকার বিহার দফু এর ঘর চারদিক থেকে ঘিরে রাখে হাতির দল। এতে তারা ঘরের ভিতরেই ভয়ে জড়োসড়ো হয়ে বসে থাকেন। ঘরে বন্দি অবস্থায় থেকে ডেভিড মৃধা মোবাইল ফোনে খবর দেন রামচন্দ্রকুড়া বিজিবি ক্যাম্পে, ফাড়ি পুলিশকে ও তার পরিচিত ব্যক্তিদের। প্রশাসনের লোকজন ছুটে আসেন ঘটনাস্থলে। সেই সাথে স্থানীয়রা সবাই মিলে ধাওয়া করেন হাতির দলকে। তবুও যায় না হাতির দল। এক সময় মিশনারী স্কুলের হোস্টেল এবং ইনচার্জ মৃদুল চাম্বুগং হাতির অদূরে দাঁড়িয়ে বিনয়ের সাথে অনুরোধ করে গারো ভাষায় বলেন-‘মামা যেটা খেয়েছো খেয়েছই, যদি খাওয়া হয়ে থাকে তবে চলে যাও’। তখন হাতির দল চলে যায়। হাতির দল মিশনের টিলায় ওঠার নতুন রাস্তা আবিষ্কার করে। মিশনের উত্তরে কাটাতার না থাকায় ওই জায়গা অরক্ষিত। সেই রাস্তা দিয়ে হাতি ওঠা নামা করার কারণে সামান্য বৃষ্টিতে টিলা ধসে যেতে বসেছে। হাতি আতংক দূর হচ্ছে না পাহাড়িবাসীর। দিন রাত হাতি আতংকে রয়েছেন পাহাড়িবাসী।
পানিহাটা মিশনের ফাদার ডেভিড মৃধা বলেন, রাত তিনটায় হঠাৎ আমাকে ফোনে জানানো হলো যে, আমার ঘরের পাশে হাতি। আমি তাড়াহুরো করে ওঠে জানালা দিয়ে দেখি আমার ঘরের চারদিক ঘিরে রেখেছে হাতির দল। বাকীরা দাঁড়িয়ে কাঁঠাল খাচ্ছে। এই দৃশ্য দেখে ভয়ে আমার শরীর কাঁপতে থাকে। তবুও চুপি চুপি করে মোবাইল করে বিভিন্ন জায়গায় খবর দেই। ঘটনাস্থলে সবাই ছুটে আসে। আমাদের সহযোগিতা করে। দীর্ঘক্ষণ কাঁঠাল খেয়ে হোস্টেল ইনচার্জ অনুরোধ করে হাতির দলকে। সবাই হাতিকে ধাওয়া করে পরে তারা চলে যায়। ফাদার বলেন, হাতি প্রাকৃতিক সম্পদ, তারা আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত, তারা সব দেশের। আমরাও বাঁচতে চাই হাতিকেও বাঁচাতে চাই। কিন্তু কেউ কারো ক্ষতি করে নয়। তিনি তার মিশনের নিরাপত্তা দাবি করে সরকারের সহযোগিতা কামনা করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
প্রকাশক কর্তৃক স্যানমিক প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত। সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ প্রথমবেলা
Site Customized By Rahatit.Com