1. admin@prothombela.com : দৈনিক প্রথমবেলা : দৈনিক প্রথমবেলা
  2. alhajshahalam99@gmail.com : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক : দৈনিক প্রথমবেলা সত্যে অবিচল দৈনিক
  3. 65@sondat.com.vn : claudejnj9 :
শিরোনাম :
ধান ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার সৈয়দপুরে শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকান্ড জনসম্মুখে তুলে ধরা ও যুদ্ধাপরাধীদের নতুন চক্রান্তের প্রতিবাদে স্থানীয় আ’লীগের জনসভা নওগাঁ রাণীনগরে তাল বীজ রোপণের উদ্বোধন দরিদ্র মানুষের সামাজিক নিরাপত্তা বেড়েছে: খাদ্যমন্ত্রী ভালুকায় জনগণ ও শ্রমিকের কষ্ট লাগবে রাস্তা সংস্কারের উদ্বোধন সাতক্ষীরায় পানিবন্দী মানুষের মানববন্ধন নারায়ণ হত্যাকাণ্ডের খুনী রাজু  আটক জামুকা’র সুপারিশ বিহীন বেসামরিক গেজেট ধারী ২৩ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের যাচাই-বাছাই সম্পন্ন ভাঙ্গা সাঁকোয় লাখ মানুষের চলাচলে চরম দুর্ভোগ নালিতাবড়ীতে বাল্যবিবাহে- বরের তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড

দিঘলিয়ায় নির্বাচনী সহিংসতা – শঙ্কিত ভোটাররা

  • আপডেট টাইম: মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১১ বার দেখা হয়েছে
দিঘলিয়া প্রতিনিধিঃ গত ১২ সেপ্টেম্বর দিঘলিয়া উপজেলার সেনহাটিতে নির্বাচনী সহিংসতায় উভয় পক্ষের পনেরো জন আহত হয়েছে। ছয়জনের অবস্থা আশংকাজনক।
তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জিয়া গাজীর সমর্থক হিটলারকে মারধর করা নিয়েই এলাকায় এ সহিংসতা শুরু হয়।
এ ব্যাপারে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী ফারহানা হালিম বাদী হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী গাজী জিয়াউর রহমানকে প্রধান আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নম্বর ৯, তারিখ ১৩/০৯/২০২১ ইং।
এদিকে  রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অপর প্রার্থী গাজী জিয়াউর রহমানের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছিল। এ নিয়ে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে, অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে এবং পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ১২ সেপ্টেম্বর তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জিয়া গাজীর সমর্থক হিটলারকে মারধর করে ফারহানা হালিমের সমর্থকেরা। এই ঘটনার জের ধরেই গাজী জিয়াউর রহমান তার নির্বাচনী কর্মীদের সাথে নিয়ে পূর্ব হিটলারকে মারার ব্যাপারে অভিযোগ জানানোর জন্য সেনহাটি পুলিশ ফাঁড়িতে আসে। জিয়া কয়েক জন সমর্থক নিয়ে ফাঁড়ির ভেতরে যান এবং কিছু সমর্থকে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকে। এ সময় আ’লীগের মনোনীত প্রার্থী ফারহানা হালিমের সমর্থকেরা জিয়া গাজীর রাস্তায় দাঁড়ানো সমর্থকদের সাথে বাক বিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনার কিছুক্ষণ পর চন্দনীমহল স্টার দুই নম্বর গেট থেকে মোটরসাইকেল যোগে ফারহানা হালিমের সমর্থক মল্লিক মিজানুর রহমান (৪০), বাবু গাজী (৩৫) ও দিঘলিয়া উপজেলার ছাত্রদলের আহবায়ক গাজী মনিরুল (৩০) পুলিশ ফাঁড়ির সামনে আসে এবং জিয়া গাজীর সমর্থকদের উপর হামলা করে। তারা কয়েক দফা জিয়া গাজীর লোকজনের উপর হামলা চালায়। এসময় তারা দুটি মোটরসাইকেল ভাঙ্গচুর করে। তাদের হামলায় বেশ কয়েকজন আহত হলে তাদেরকে দিঘলিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে খুলনা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। এর পর ফারহানা হালিমের সমর্থক মিজান মল্লিক, বাবু গাজী ও দিঘলিয়া ছাত্রদলের আহবায়ক মনিরুল গাজীর নেতৃত্বে ফারহানা হালিমের সমর্থকরা জিয়া গাজীর গণসংযোগে হামলা করে। এক পর্যায়ে মিজান মল্লিক, আশরাফ মোল্লা, মনিরুল গাজীর নেতৃত্বে স্টার দুই নম্বর গেটে জিয়া গাজীর সমর্থক মনছুর ও জামালের চায়ের দোকান ও নজরুলের বাড়ি ভাঙ্গচুর করে। এসময় আশরাফ মোল্লা তাছের নামক ব্যক্তিকে অমানসিকভাবে মারধর করে। তারা কমলের স্ত্রী, আজিজুর ও মারুফকে মারধর করে। এ সময় জিয়া গাজীর লোকজন প্রতিরোধে এগিয়ে এলে  মিজান মল্লিক, বাবু গাজী ও মনিরুল গাজী আহত হয়। সন্ধ্যায় ফারহানা হালিমের ছেলে নিলয়ের নতৃত্বে তাঁর সমর্থকরা স্বতন্ত্র প্রার্থী জিয়া গাজীর অফিস ভাঙ্গচুর করে এবং অফিসে বসে থাকা মারুফকে কুপিয়ে খুন জখম করে বলে জানা গেছে।
খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুশান্ত, দিঘলিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আহসান উল্লাহ চৌধুরী, ওসি তদন্ত রিপন কুমার সরকার বোগদিয়া স্কুল মোড় থেকে আশরাফ বাহিনীর সাব্বিরকে গ্রেফতার করে।
পুলিশ জানায়, আশরাফের লোকজন এসময় সাব্বিরসহ অস্ত্র ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। পরে জিয়া গাজী যখন তাদের এলাকায় সংঘটিত সংঘর্ষের ঘটনা নিয়ে কথা বলছিলেন সেখান থেকে পুলিশ জিয়া গাজীর ভাই মুসা গাজীকে গ্রেফতার করেছে। ঘটনার পর বোগদিয়ার আশরাফ মোল্লা ৪ নং ওয়ার্ডের জনৈক সদস্য প্রার্থীকে  হুমকি দিয়ে বলেছে, “কাল থেকে গনসংযোগ করবিনা। নির্বাচন আমরা এক তরফা করে নেব। তোদের কেন্দ্রে আসতে দেওয়া হবেনা।”
শুধু তাই নয় সংবাদ প্রকাশিত ও প্রচারিত হওয়ার পর নৌকার প্রার্থী ফারহানা হালিম এবং তাঁর সমর্থকদের পক্ষ থেকে দিঘলিয়ায় কর্মরত জনৈক সাংবাদিককে গালাগালি  ও মামলার হুমকি দেওয়া হয়েছে।
এ সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১৫ জন আহত হয়। আহত ১৫ জনের মধ্যে গুরুতর আহত মল্লিক মিজানুর রহমান, বাবা গাজী ও মনিরুল গাজী ফারহানা হালিমের সমর্থক এবং আহত হিটলার, আজিজুর ও মুনছুর, মারুফ, ফিরোজসহ আহত ১২ জন গাজী জিয়াউর রহমানের সমর্থক। তাদেরকে খুলনা মেডিকেল কলেজ ও বিভিন্ন ক্লিনিক ভর্তি করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
প্রকাশক কর্তৃক স্যানমিক প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত। সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ প্রথমবেলা
Site Customized By Rahatit.Com